North Bengal Siliguri

ট্রেনিং দিয়ে চাকরির নামে প্রতারণা, পুলিশ সুপারের দ্বারস্থ যুবক।

মালদা: বর্তমানে সবথেকে বড় সমস্যা বেকারত্ব, আর সেই বেকারত্ব ঘোচানোর জন্য রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন ফ্রি স্কিল ডেভেলপমেন্ট কোর্স চালু করেছে। যেখানে বেকার যুবক-যুবতীরা বিভিন্ন ট্রেনিং নিয়ে ট্রেনিং শেষে স্টাইপেন, চাকুরী অথবা স্বনির্ভর হওয়ার সুযোগ পায়। কিন্তু তবুও কিছু অসাধু মানুষ এই বেকার যুবক যুবতীদের কর্মহীনতার সুযোগ নিয়ে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে টাকার বিনিময় ট্রেনিং ও তারপর ১০০% কাজের সুযোগ এর নামে হাজার হাজার টাকা আত্মসাৎ করছে। এমনই ঘটনা ঘটেছে মালদা শহরের ৪২০ মোড়ে। একটি বেসরকারি সংস্থা ৪২০০ টাকার বিনিময়ে স্কিল ডেভেলপমেন্ট ট্রেনিং ও ট্রেনিং শেষে ১০০% কাজের সুযোগের প্রতিশ্রুতি দেয়। সেই কথা মত কিছু গরিব ছেলে মেয়ে সেখানে টাকা জমা করে ও ট্রেনিং নেয়। ট্রেনিং শেষে তাদের একটি সার্টিফিকেট দেওয়া হয় যাতে অফিসের কোন এড্রেস ডিটেলস নেই। তা দেখে ছেলে মেয়েরা প্রতিষ্ঠান কর্মকর্তাদের সার্টিফিকেটের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন করলে তাদের বিভিন্ন ভাবে বোঝানো হয় এটাই ঠিক। এরপরে ছেলেমেয়েরা স্থানীয় কোন প্রতিষ্ঠান চাকরির আবেদনের সাথে সে সার্টিফিকেট দেখালে সেই সার্টিফিকেট কে কোনরকম গ্রাহ্য করা হয়নি। তাছাড়া সেই বেসরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে যাদের প্রতিশ্রুতি মতন কাজের সুযোগ দেওয়া হয় তাদেরও অভিযোগ তাদের ভিন রাজ্যে কাজে পাঠানো হয়। যেখানে যাওয়ার জন্য তারা মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলেননা এবং সে রাজ্যের ভাষা এবং খাওয়া-দাওয়া অভিন্ন। তাতে তারা যে সেলারি পাবে বলে ঠিক হয় তা অনেক কম সুতরাং বর্তমানে এই সমস্ত বেকার ছেলে মেয়ে যারা সেখান থেকে ট্রেনিং নিয়েছে তারা অভিযোগ করছে যে এই সংস্থা নিজেদের প্রতিশ্রুতি মতন ট্রেনিং অথবা ট্রেনিং শেষে ঠিকঠাক প্লেসমেন্ট দিচ্ছেনা। বেকার যুবক যুবতীরা এ ধরনের প্রতারণায় একদম ভেঙে পড়েছে। তারা এই বিষয়ে মালদা জেলার এসপির কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন এবং তারা মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ জানিয়ে সঠিক বিচারের জন্য দ্বারস্থ হবেন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

News: হক জাফর ইমাম,

Share this:

You may also like