North Bengal

“কৈলাসে বীণাপাণি” ৪০ ফিট উঁচু প্যান্ডেলে মা সরস্বতী পূজা পুরাতন মালদার বাঘাযতীন সংঘের।

“”কৈলাসে বীণাপাণি”” ৪০ ফিট উঁচু প্যান্ডেলে মা সরস্বতী পূজা পুরাতন মালদার বাঘাযতীন সংঘের। এবারে পুরাতন মালদার বাঘাযতীন সংঘের ১২ তম সরস্বতী পুজো । গত বছর মালদা জেলায় এই ক্লাব উদ্যোক্তারা ৩১ফিটের সরস্বতী প্রতিমা তৈরি করে জেলায় সাড়া ফেলে দিয়েছিল এবং স্থান দখল করেছিল এবারও সেই ধারা বজায় রাখতে ঘুম কেড়েছে ক্লাব উদ্যোক্তাদের ।জানা গেছে এবারে পুজো মণ্ডপ সম্পূর্ণরূপে কৈলাসের পাহাড়ের আদলে মণ্ডপ তৈরি হচ্ছে এবং এই মন্ডপ তৈরি করছেন হবিবপুর ব্লকের মন্ডপ শিল্পী জয়দেব ঘোষ এবং মৃৎশিল্পী রয়েছেন গত বছরের শিল্পী হবিবপুর ব্লকের নিরঞ্জন সিংহ মহাশয় ।জানা গেছে একমাস আগে থেকে মন্ডপ এবং প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত শিল্পীরা থেকে শুরু করে ক্লাব উদ্যোক্তারা ।তবে উদ্যোক্তারা জানাই এবারের বিশেষ আকর্ষণ রয়েছে তাদের এই পর্বতের কৈলাস, পর্বতের তিন দিক দিয়ে ঝর্ণা বইবে এবং মাঝখানে একটি পুকুরের মধ্যে শিব লিঙ্গ থাকবে সেখানে এসে ঝরনার জল গুলি পড়বে এবং সেই পুকুরে বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক নিদর্শন তুলে ধরা হবে যেমন মাছ হাঁস বিভিন্ন ধরনের জলজ প্রাণী ।

ক্লাব উদ্যোক্তা রাজু ঘোষ জানাই যে এবারের তাদের পুজোর বাজেট প্রায় এক লক্ষ টাকা যা প্রায় মন্ডপ শয্যায় খরচা হয়ে যাবে এবং উদ্যোক্তারা আরেকটি বিশেষ তথ্য জানায় যে তাদের এই ক্লাবের পূজো হিন্দু-মুসলিম সকল সদস্য মিলেই আয়োজন করে, যেমন তাদের এই ক্লাব সদস্য জাহাঙ্গীর শেখ, রনি শেখ এরাও এই পুজো নিয়ে ব্যস্ত রয়েছে যা অন্য কোন ক্লাবে এই নজিরবিহীন সম্প্রীতি লক্ষ্য করা যায় না ।তাদের এই পূজা মন্ডপ বাঁশ, চট এবং প্যারিস প্লাস্টার দিয়ে তৈরি হচ্ছে এবং এবারের সরস্বতী উচ্চতা প্রায় ১০ ফুট ।তবে ক্লাব উদ্যোক্তাদের দাবি এবারও তাদের এই পুজো মণ্ডপ জেলা বাসীর মন কাড়বে বিশেষ করে ছোটদের কারণ মণ্ডপের সামনে যে পুকুরটি হচ্ছে সেখানে শিবলিঙ্গের সাথে সাথে বিভিন্ন ধরনের হাঁস মাছ এবং জলজপ্রাণী ও বিভিন্ন ধরনের আলোকসজ্জা লক্ষ্য করা যাবে পাশাপাশি ক্লাব উদ্যোক্তারা জানান যে বর্তমান যুগের সাথে তাল মিলিয়ে মণ্ডপের সামনে একটি সেলফি জোন করা হবে যাতে করে আগত দর্শনার্থীরা অনায়াসে সেলফি তুলতে পারে এক কথায় বলা যায় বাঘাযতীন সংঘের ক্লাব সদস্যরা এবারও দর্শকের মনের চাহিদাতে খামতি রাখতে চাইছে না।

News: হক জাফর ইমাম।

Share this:

You may also like