North Bengal

কংগ্রেসের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন মৌসম বেনাজির নূর বললেন আবু হাসেম খাঁন চৌধুরি।

ভোটের আগে দলবদল করে কংগ্রেসের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন মৌসম বেনাজির নূর বললেন দক্ষিণ মালদার সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরি৷ আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে উত্তর মালদা কেন্দ্রে মৌসম নুরের বিরুদ্ধে প্রচারে আসছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধি ও তাঁর বোন প্রিয়াংকা গান্ধি৷ আজ সেকথা স্পষ্ট করেছেন দক্ষিণ মালদার সাংসদ আবু হাসেম খান চৌধুরি৷ বেশ কয়েকদিন পর আজ সকালেই মালদা ফিরে আসেন তিনি৷ তিনিও বলেন, মৌসমকে তাঁরা রাজনীতিতে পোক্ত করেছেন৷ তবে এখনও তাঁর ভাগনি রাজনৈতিক পরিপক্ক হয়নি৷ তাই সে দেশের ভবিষ্যৎ বুঝতে পারেনি৷ আগামী লোকসভা নির্বাচনে জনতার রায়ে দেশে ক্ষমতায় আসছে কংগ্রেস৷ মৌসম দলে থাকলে তার মন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা ছিল৷ কিন্তু সে হিসাবে ভুল করে তৃণমূলে যোগ দিয়েছে৷ তবে সে দল ছেড়ে চলে যাওয়ায় কংগ্রেসের কোনও ক্ষতি হবে না৷ কংগ্রেস শতাব্দী প্রাচীন দল৷ এমন আঘাত মাঝেমধ্যেই কংগ্রেসে এসেছে৷ দল ফের ঘুরেও দাঁড়িয়েছে৷ মৌসম দল ছাড়ায় প্রথমে তিনি দুঃখ পেলেও এখন মন শক্ত করে নিয়েছেন৷

আগামীতে তাঁরাআরও বড়ো লড়াই সংগ্রামের জন্য প্রস্তুত৷ ডালুবাবু বলেন, বরকত সাহেব ছিলো কংগ্রেসের একটি বড়ো স্তম্ভ৷ যে স্তম্ভের উপর তৈরি ইমারতেই তাঁরা রাজনীতি করেন৷ তাঁর দেখানো পথে এগিয়ে যাচ্ছেন৷ কোতুয়ালির এই বাড়ি বরকতদার বাড়ি৷ এই বাড়ির এক সদস্য দল ছেড়ে তৃণমূলে যাওয়ায় তিনি দুঃখিত, লজ্জিত৷ মৌসমকে তাঁরাই প্রথমে বিধায়ক, পরে সাংসদ তৈরি করেছেন৷ আগামী নির্বাচনে তাঁর সঙ্গে ইশা খান চৌধুরির আদর্শের লড়াই হবে৷ ভোটাররা প্রথমে একটু হতাশ হয়ে পড়লেও ওই কেন্দ্রে ইশার নাম শুনে তাঁরা হতাশা ঝেড়ে ফেলেছেন৷ তাঁরা এবার মৌসমের বিশ্বাসঘাতকতার জবাব দিতে প্রস্তুত৷ আজ তৃণমূলকেও একহাত নেন ডালু মিয়াঁ৷ বলেন, ওটা একটা গণতন্ত্র বিরোধী দল৷ ওরা ভয় দেখিয়ে, টাকা আর চাকরির লোভ দেখিয়ে মানুষকে কাছে টানে৷ কিছু দেয় না৷ এভাবে চলে না৷ মানুষকে ভালোবাসার মধ্যে দিয়ে কাছে টানতে হবে৷ যেটা তাঁরা করে চলেছেন৷ তাই মানুষের কাছ থেকে তাঁরা কোনোদিন বিচ্ছিন্ন হননি৷ এই পরিবারকে ভালোবাসেন গান্ধি পরিবারের সদস্যরাও৷ তাই আগামী নির্বাচনের আগে উত্তর মালদায় ইশার সমর্থনে প্রচারে আসছেন রাহুল ও প্রিয়াংকা গান্ধি৷

News: হক জাফর ইমাম।

Share this:

You may also like