Khabar Aajkal Siliguri

ডিসাবেল্ড বলে নির্দিষ্ট কাওকে চিহ্নিত করা যায় না কারণ প্রত্যেক মানুষই কোনো না কোনো ভাবে ডিসাবেল্ড | সমাজের চোখে ডিসাবেল্ড শব্দটিকে ডিফারেন্টলি এবেল্ড বা বিশেষ ভাবে সক্ষম বলতে বিশ্বাসী রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর ডিফারেন্টলি এবেল্ড ইন-চার্জ ড:তাপস পাল, আই. কিউ. এ. সি. রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ও ড: ভূপেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতি মহাবিদ্যালয়-এর ড: নির্মলা রাজাক ও ড: সুকান্ত দাস ওনাদের যৌথ উদ্যোগে প্রথম ইন্টারন্যাশনাল ই-কুইজ, ই-এসে ও ই- পেইন্টিং প্রতিযোগিতা আয়োজিত হয় 8ই সেপ্টেম্বর থেকে 7ই অক্টোবর পর্যন্ত বিশেষ ভাবে সক্ষম শিক্ষার্থীদের জন্য | ভারত সহ ব্রাজিল, সুরাবায়া, ইন্দোনেশিয়া বিভিন্ন জায়গা থেকে ডিফারেন্টলি এবেল্ড স্টুডেন্টরা এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে | প্রতিযোগিতার বিষয় ছিল সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট, বর্তমান পৃথিবী ও মহামারী নিয়ে আর্ট, কুইজ ও প্রবন্ধ | গত 9ই অক্টোবর তাপস বাবু ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য আগ্রহী ছাত্ররা মিলে রায়গঞ্জ থেকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের বাড়িতে গিয়ে পুরস্কৃত করেন |
রায়গঞ্জ থেকে সেঁজুতি গুহ ‘ডোন্ট ক্রাই মাদার আর্থ এন্ড হাউ টু লাভ মাদার আর্থ ‘ এবং রজত ঘোষ ‘উই নিড টু ফলো ইউ. এন’স সাস্টেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল 2030’ শিরোনামে এঁকে অনলাইন এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে এবং রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে তাপস বাবু নিজে গিয়ে তাদেরকে পুরস্কৃত করেন | রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগীয় ডিন কালীশঙ্কর তিওয়ারি বলেন বিশেষ ভাবে সক্ষমদের জন্য এই ধরণের উদ্যোগ সম্ভবত প্রথম তাও আবার ইন্টারন্যাশনাল, সকলের এতো উৎসাহ চোখে পড়ার মতোই ছিল | ড: ভূপেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতি মহাবিদ্যালয়-এর ড: সুকান্ত দাস জানান মূলত ড: তাপস পালের উৎসাহেই এই পুরো বিষয় নিয়ে এতো বড়ো একটা অনলাইন প্রতিযোগিতা আয়োজন সম্ভব হয়েছে এবং ভবিষৎ-এও এই ধরণের আরও কাজ করতে চাই |
তাপস বাবু আমাদের সাথে সাক্ষাৎকারে জানান রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ে সেন্টার ফর ডিফারেন্টলি এবেল্ড পার্সন-এ ইনচার্জ হিসেবে জয়েন করার পরে তিনি প্রতিবন্ধী শব্দিটির কতটা ক্ষীণ তা বলেন আর এও বলেন তিনি বিভিন্ন জায়গায় এই ধরণের শিক্ষার্থীদের সাথে মিশে দেখেছেন তারা কোনো না কোনো দিক দিয়ে বিশেষ ভাবে সক্ষম | এদিন পুরস্কার দিতে গিয়ে অবিভাবকদের সাথে কথাও বলেন এবং ভবিষৎ-এ এই ধরণের স্টুডেন্টদের কিভাবে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া যায় তা নিয়েও কথা বলেন |

subscriber

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *